Advertisements

জীবনের বিজ্ঞান

শীর্ষ ছবি: লিদিৎসে’র শিশুদের স্মরণে চেক ভাস্কর মারী উচাইতিলোভার  The Memorial to the Children Victims of the War এর একাংশ (ছবিসুত্র)

Each man’s death diminishes me, For I am involved in mankind. Therefore, send not to know, For whom the bell tolls, It tolls for thee. (John Donne (1572–1631)O peace! how many wars were waged in thy name.Alexander Pope (1688 – 1744)

যুদ্ধের নামে মানুষের বর্বরতার উদহারনের কোন অভাব নেই। তবে বর্বরতার এই ইতিহাসটি চেকোস্লোভাকিয়ার একটি ছোট্ট গ্রাম লিদিৎসে (Lidice) র। ১৯৪২ সালের ১০ জুন নাৎসী জার্মানীর এসএস সেনাদের নৃশংস হত্যাকান্ড এবং নির্যাতনের শিকার হয়েছিল  এই গ্রামটির নিরীহ বেসামরিক অধিবাসীরা, শিশু, নারী এবং পুরুষ। ১০ জুন ছিল সেই গনহত্যার ৭২ তম বার্ষিকী। এই ৭২ বছরে আরো অসংখ্য গনহত্যা হয়েছে। ভু-রাজনৈতিক আধিপাত্য,ধর্ম আর সাম্রাজ্যবাদের শিকার হয়েছে নীরিহ শিশু, নারী ও পুরুষ। আমরা কিছুই বদলাতে পারিনি এবং পারবো বলেও অনেকের মত আমি আশাবাদী না। তাই হয়তো এই লেখা : সব…

View original post 2,011 more words

জীবনের বিজ্ঞান

Poetry is just the evidence of life. If your life is burning well, poetry is just the ash. Leonard Cohen

আমার নিঃশ্বাস তোমার
শরীরের ভাজে পড়বে বলে
আগুন জ্বেলেছি তিতীর্ষার জলে
দেখেছি সব সাগর শামুক
পালিয়ে বাঁচে, মহুয়া এক অন্ধকারে..

কি অদ্ভুত ! তুমিও কাদছো
আমিও ভাসি চোখের জলে
সময় অসময়
কুন্ডলী পাকানো শামুকের দলে
মিলে সব, নোনা জলে –
জ্বলে থাকে শুধু একটি তারা, আকাশের তলে

তোমার শরীরে  আমার
তপ্ত শ্বাস পড়বে বলে
বাসর সাজিয়েছি তৃষ্ণা ফুলে
কার কি এসে যায় তাতে?

রোজ আমি ভাসি চোখের জলে
তপ্ত শ্বাসেই আমার সাজা …

কি অদ্ভুত ! তোমার চোখ কেন ভেজা ?

( কবিতা:  আসমা সুলতানা, আগষ্ট ১৬, ২০০৯)

View original post

জীবনের বিজ্ঞান

You don’t have to burn books to destroy a culture. Just get people to stop reading them. Ray Bradbury

যারা বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী পড়তে ভালোবাসেন রে ব্র্যাডবুরির (Ray Douglas Bradbury ; August 22, 1920 – June 5, 2012) তাদের খুবই পরিচিত। গত ৫ জুন  ৯১ বছর বয়সে কল্পকাহিনীর এই অনন্য লেখক চিরবিদায় নিলেন । খবরটা আজ মিডিয়ায় এসেছে। রে ডগলাস ব্র্যাডবুরির সাথে আমার পরিচয় বেশী দিনের না।  তার সেরা সৃষ্টি Fahrenheit 451 এর মাধ্যমে তার সাথে প্রথম পরিচয়। তবে তার এই বইটির কাহিনী নিয়ে নির্মিত ফ্রাসোয়া ট্রুফোর চলচ্চিত্র  Fahrenheit 451 দেখেছিলাম মুল বইটি পড়ার আগে। ফারেনহাইট ৪৫১ ছাড়াও তার অসংখ্য সৃষ্টি আছে।

View original post 666 more words