তীষ্য

আমার অন্ধকার জরায়ুতে
‍নিযুত শামুকেরা
হেটে যায় নির্দিধায়,
অন্ধকারের ভেতর থেকে
উঠে আসে ভালোবাসার কন্ঠ,

যে নক্ষত্রের জন্ম-মৃত্যু
আমার জরায়ুর উৎস —
সেই ভ্রুনের,
সেই নক্ষত্রের,
নামই তীষ্য!

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s